Read In
Whatsapp
Advertisement

নতুন রয়্যাল এনফিল্ড হিমালয়ান 450 নাকি KTM 390 অ্যাডভেঞ্চার? দেখে নিন কোন বাইক সেরা Off roading এর জন্য

সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে নতুন Royal Enfield Himalayan বাইক। অ্যাডভেঞ্চার বাইকটির দাম শুরু হচ্ছে 2.69 লক্ষ টাকা থেকে। বাইকে যুক্ত হয়েছে নয়া Sherpa 450 ইঞ্জিন। আর এই ইঞ্জিন মোট 39.5 bhp…

Published By: Ritwik | Published On:
Advertisements

সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে নতুন Royal Enfield Himalayan বাইক। অ্যাডভেঞ্চার বাইকটির দাম শুরু হচ্ছে 2.69 লক্ষ টাকা থেকে। বাইকে যুক্ত হয়েছে নয়া Sherpa 450 ইঞ্জিন। আর এই ইঞ্জিন মোট 39.5 bhp শক্তি উৎপন্ন করতে সক্ষম। ফিচারপ্যাকড বাইকটি বাজারে আসার পর থেকেই BMW G 310 GS, Triumph Scrambler 400 X, Yezdi Adventure, এবং KTM 390 Adventure এর সাথে জোর টক্কর শুরু হয়েছে।

Advertisements

তবে ভারতের বাজারে Royal Enfield Himalayan 450 কে বড় টক্কর দেবে KTM এর 390 Adventure। তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক দুই বাইকের মধ্যে কে এগিয়ে।

ইঞ্জিন

Royal Enfield Himalayan 450
হিমালয়ান বাইকে একটি 452cc লিকুইড-কুলড সিঙ্গেল-সিলিন্ডার ইঞ্জিন রয়েছে। এই ইঞ্জিনটি একটি ছয়-স্পিড ট্রান্সমিশন এবং একটি স্লিপ-এন্ড-অ্যাসিস্ট ক্লাচের সাথে যুক্ত। Himalayan 450 এর ইঞ্জিন 5,500rpm-এ 40Nm পিক টর্ক এবং 8,000rpm-এ 39.5bhp শক্তি উৎপন্ন করে।

KTM 390 Adventure
অন্যদিকে KTM 390 অ্যাডভেঞ্চার বাইকে রয়েছে 373.2cc সিঙ্গেল-সিলিন্ডার লিকুইড-কুলড মোটর। KTM বাইকের ইঞ্জিনটি 9,000rpm-এ 43bhp শক্তি এবং 7,500rpm-এ 37Nm শক্তি উৎপাদন করে৷ এই বাইকেও ছয়-গতির ট্রান্সমিশন, একটি স্লিপ-এন্ড-অ্যাসিস্ট ক্লাচ এবং ট্রান্সমিশনের জন্য একটি কুইক শিফটার রয়েছে।

হিমালয় বেশি টর্ক তৈরি করলেও KTM 390 অ্যাডভেঞ্চার রয়্যাল এনফিল্ড বাইকের চেয়ে বেশি শক্তি উৎপন্ন করে।

ডিজাইন

Himalayan বাইকটি দারুণ ডিজাইনের সাথে বাজারে এসেছে। তিনটি ভেরিয়েন্টের নিজস্ব রং রয়েছে। এর মধ্যে পাস ভেরিয়েন্টটি স্লেট হিমালয়ান সল্ট এবং পপি ব্লু পেইন্টওয়ার্কের সাথে আসে। বেস মডেলটি শুধুমাত্র কাজা ব্রাউনে উপলব্ধ৷ সামিট ভেরিয়েন্টে হ্যানলে ব্ল্যাক এবং কামেট হোয়াইট পেইন্টের সাথে পাওয়া যায়। অন্যদিকে স্ট্যান্ডার্ড KTM 390 অ্যাডভেঞ্চারের জন্য দুটি রঙ পাওয়া যায়। এগুলো হলো আটলান্টিক ব্লু এবং ডার্ক গ্যালভানো ব্ল্যাক।

একটি ছোট উইন্ডস্ক্রিন, স্প্লিট-স্টাইলের বসার ব্যবস্থা, 14.5-লিটার ফুয়েল ট্যাঙ্ক এবং সামনে 19-ইঞ্চি এবং পিছনে 17-ইঞ্চি পরিমাপের অ্যালয় হুইল সমেত পাওয়া যায় KTM 390 Adventure। নতুন হিমালয়ান বাইকে 17-ইঞ্চি সামনের চাকা, 21-ইঞ্চি পিছনের চাকা এবং 17-লিটারের ফুয়েল ট্যাঙ্ক সহ বর্ধিত হ্যান্ডেলবার রয়েছে।

দাম

Royal Enfield Himalayan 450
হিমালয়ান বাইকটির এন্ট্রি-লেভেল ভেরিয়েন্টের দাম 2.69 লক্ষ টাকা এবং মিড-স্পেক পাস মডেলের দাম 2.74 লক্ষ টাকা৷ টপ স্পেক সামিট সংস্করণটির জন্য আপনাকে 2.79 লাখ টাকা (কামেট হোয়াইট পেইন্ট) এবং 2.84 লাখ টাকা (হ্যানলে ব্ল্যাক পেইন্ট) দিতে হবে।

KTM 390 Adventure
KTM এর বাইকটি একটু বেশি ব্যয়বহুল। বাইকের অ্যালয় হুইল ভেরিয়েন্টের দাম 3.39 লাখ টাকা এবং স্পোকড ভেরিয়েন্টের দাম 3.61 লাখ টাকা।