Read In
Whatsapp
Advertisement

Hero Xoom 160: নতুন ম্যাক্সি ডিজাইনের স্কুটার প্রদর্শন হিরোর, দাম ও ফিচারস দেখে নিন

বাজার কাঁপাতে আসছে নতুন Hero Xoom 160, এইদিন হবে লঞ্চ

Published By: Ritwik | Published On:
Advertisements

ইতালির মিলানে আয়োজিত EICMA সারাবিশ্বের বিভিন্ন অটোমোবাইল নির্মাতাদের কাছে নিজেদের পণ্য প্রদর্শনের সেরা জায়গা। ভারতীয় কোম্পানিগুলো নিজেদের আন্তর্জাতিক স্তরে নিয়ে যাওয়ার জন্যও এই স্থানকে বেছে নিয়েছে। সম্প্রতি সেই শোতে Hero Motocorp তাদের একাধিক নতুন পণ্য উন্মোচন করেছে।

Advertisements

Hero Motocorp এর প্রদর্শিত পণ্যের তালিকায় রয়েছে Xoom 160, Vida V1 Pro এবং Xoom 125R। একইসাথে নতুন কনসেপ্ট 2.5R XTunt এবং Vida ইলেকট্রিক ডার্ট বাইকও আত্মপ্রকাশ করেছে Hero। এদের মধ্যে সবচেয়ে বেশী আলোচিত হচ্ছে Xoom 160। এই প্রথম Hero 160cc স্কুটার চালু করেছে। Xoom 160 এর মেকানিকাল কনফিগারেশনও সদ্যই সামনে এসেছে।

#Recommended
Honda বা TVS নয়, এবার বাজার কাঁপাচ্ছে Hero-র নতুন Xtreme 125R! কমিউটা
মাত্র 9 হাজারেই মিলবে নতুন দুই চাকা, হিরো দিচ্ছে সুপার অফার! ফায়দা নি
লঞ্চ হয়ে গেল নতুন Hero Mavrick, 2 লাখেরও কম দামেই মিলছে শক্তিশালী 440
দৈনন্দিন চালানোর খরচ মাত্র 1 টাকা প্রতি কিমি! ইলেকট্রিক স্কুটারকে টক্ক
কমিউটার সেগমেন্টে সেরা হিরোর নতুন Xtreme 125R, থাকছে শক্তিশালী ইঞ্জিন
Hero Xtreme 125R Vs TVS Raider 125 : জমে ওঠেছে বাইকের বাজার, দুই বাইকে
Hero Mavrick 440 : লঞ্চ হয়ে গেল হিরোর সবচেয়ে শক্তিশালী বাইক, বুকিং শ
Vida V1 Pro : ইলেকট্রিক স্কুটার কেনার এই তো সুযোগ, 24 হাজার টাকার বড়
Hero Xtreme 125R : 125 সিসি সেগমেন্টে বাজারে ধামাল মাচাবে হিরোর নতুন ব
Hero Splendor Electric : তেল নয় এবার বিদ্যুতেই ছুটবে নতুন Splendor, ম

Hero Xoom 160 একেবারে নতুন একটি লিকুইড-কুলড 156cc সিঙ্গেল-সিলিন্ডার ইঞ্জিন লঞ্চ করেছে। এই ইঞ্জিনই Xoom 160 কে শক্তি প্রদান করে। সর্বোচ্চ 14bhp শক্তি এবং 13.7Nm পিক টর্ক উৎপাদন করতে সক্ষম সেটি। স্টপ এবং সাইলেন্ট স্টার্ট ফিচারস সহ i3S প্রযুক্তির সাথে আসে Xoom 160। এখানে উল্লেখ্য যে। স্কুটারটির প্রদর্শন করা হলেও সেটি কবে উৎপাদনে যাবে সেই নিয়ে কিছুই জানায়নি Hero।

নতুন Maxi ডিজাইনের Xoom 160 ভারতের পাশপাশি বৈশ্বিক বাজারেও লঞ্চ করতে পারে Hero। স্কুটারে রয়েছে একটি লম্বা উইন্ডস্ক্রিন এবং সামনে একটি দুইভাগে বিভক্ত LED হেডলাইটের ব্যবস্থা রয়েছে। আর এই ডিজাইন স্কুটারটিকে অ্যাডভেঞ্চার বাইকের লুক দেয়। শক্তিশালী চেহারা সহ 14-ইঞ্চির চাকা, রিমোট ওপেনিং ফাংশন, সিঙ্গেল-পিস সিট, ফাইন্ড-মাই-স্কুটার ফাংশন সহ আরও অনেক ফিচারসের সাথে লঞ্চ হয়েছে স্কুটারটি।

উল্লেখ্য যে, এখনও অবধি লঞ্চ নিয়ে সেরকম কিছু জানা যায়নি কিন্তু আগামী বছরের প্রথমার্ধেই স্কুটারটি ভারতে লঞ্চ করতে পারে Hero। একইসাথে বিভিন্ন রিপোর্ট সূত্রে খবর ম্যাক্সি ডিজাইনের এই স্কুটারের দাম থাকতে পারে 1.2 লক্ষ টাকা। যা বাজারে অন্যান্য ম্যাক্সি ডিজাইনের স্কুটারের থেকে অনেকটাই কম।