Read In
Whatsapp
Advertisement

Hero Karizma Vs Honda Hornet 2.0 কোন বাইক সেরা? দাম ও ফিচার্স দেখে যাচাই করুন

হিরো নাকি হোন্ডা, XMR 210 নাকি Hornet 2.0, কোন গাড়ি কিনবেন এবার পুজোতে?

Published By: Ritwik | Published On:
Advertisements

সদ্যই বাজারে এসেছে Hero Karizma XMR। ভক্তদের নস্টালজিয়া উস্কে ফের একবার নতুন অবতারে লঞ্চ হয়েছে এই মডেল। 210 সিসির দুরন্ত ইঞ্জিনের সঙ্গে আরও একাধিক স্মার্ট ফিচার্সে ঠাসা এই মডেল। হিরো কারিশমার পাশাপাশি লঞ্চ হয়েছে নতুন Honda Hornet ও। আজকের প্রতিবেদনে এই দুটি বাইকের দাম এবং ফিচার্স সম্পর্কেই আলোচনা করব।

Advertisements
Hero Karizma XMR

এতে পেয়ে যাবেন 210 সিসি সিঙ্গেল লিকুইড কুলড ইঞ্জিন। বাইকটি সর্বোচ্চ 25.5 পিএস শক্তি এবং 20.4 নিউটন মিটার টর্ক তৈরি করতে সক্ষম। সাথে পেয়ে যাবেন 6 স্পিড গিয়ারবক্স। সামনের এবং পেছনের দুই চাকাতেই দেওয়া হয়েছে ডিস্ক ব্রেক এবং অ্যান্টি লক ব্রেকিং সিস্টেম বা এবিএস। বাইকটির এক্স-শোরুম রয়েছে 1.73 লাখ টাকা।

#Recommended
বাজারে ঝড় তুলতে আসছে নতুন Honda Activa 7G, মাইলেজ এবং ইঞ্জিনে থাকছে ব
Honda CB350 : Classic ছেড়ে কিনুন 24 হাজার টাকা সস্তা এই বাইক, মিলবে উ
Honda বা TVS নয়, এবার বাজার কাঁপাচ্ছে Hero-র নতুন Xtreme 125R! কমিউটা
মাত্র 9 হাজারেই মিলবে নতুন দুই চাকা, হিরো দিচ্ছে সুপার অফার! ফায়দা নি
লঞ্চ হয়ে গেল নতুন Hero Mavrick, 2 লাখেরও কম দামেই মিলছে শক্তিশালী 440
2 লক্ষ টাকা বাজেটে সেরা এই পাঁচ বাইক, দেখুন সম্পূর্ন তালিকা
দৈনন্দিন চালানোর খরচ মাত্র 1 টাকা প্রতি কিমি! ইলেকট্রিক স্কুটারকে টক্ক
কমিউটার সেগমেন্টে সেরা হিরোর নতুন Xtreme 125R, থাকছে শক্তিশালী ইঞ্জিন
দুর্দান্ত মাইলেজ সহ অসাধারন লুক রয়েছে Honda Dio’র, কিন্তু মাস গেলে খর
Pulsar NS 400 : বাজারে আসছে সবচেয়ে শক্তিশালী Pulsar, থাকছে নতুন ইঞ্জি

সর্বোচ্চ 140 কিমি প্রতি ঘণ্টা গতিবেগ তুলতে সক্ষম। এতে পেয়ে যাবেন LED লাইট। বাইকটির সামনের দিকে রয়েছে একটি উইন্ডশিল্ড প্রোটেকশন। এটি আপনি আপনার ইচ্ছেমত বাড়িয়ে বা কমিয়ে নিতে পারবেন। পাশাপাশি আপনি পেয়ে যাবেন সম্পূর্ণ ডিজিটাল ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার সঙ্গে থাকছে স্মার্টফোন কানেকশন। আপাতত লাল, হলুদ এবং কালো রঙের অপশন উপলব্ধ রয়েছে।

Honda Hornet 2.0 

একই সাথে হন্ডাও একটি নতুন বাইক এনেছে। এটি মূলত জনপ্রিয় Hornet এর নতুন এডিশন। এই বাইকটির মূল বৈশিষ্ট্য হল এতে রয়েছে OBD-2 ইঞ্জিন। বাইকটি Karizma এর থেকে কম শক্তিশালী তবে পারফরম্যান্সের বিচারে কিন্তু অসাধারণ।

বাইকটিতে আপনি 184 সিসির সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিন পেয়ে যাবেন। সর্বোচ্চ 17 hp শক্তি এবং 15.9 Nm টর্ক তৈরি করতে পারে। সমস্ত বাইকেই রয়েছে LED সেটআপ। বেশ কয়েকটি রঙের সাথে 3 বছরের স্ট্যান্ডার্ড এবং অতিরিক্ত 7 বছর পর্যন্ত ওয়ারেন্টি বাড়িয়েও নিতে পারবেন। বাইকটির এক্স-শোরুম রয়েছে 1.93 লাখ টাকা।