Read In
Whatsapp
Advertisement

প্রতি লিটার জ্বালানির দাম থাকবে ৬০ টাকার মধ্যেই! কেন্দ্রীয় সড়ক মন্ত্রীর হাত ধরে হল বড় পরিবর্তন

এবার দীর্ঘ যাত্রা হবে আরো সহজ! প্রতি লিটার জ্বালানির দাম পড়বে মাত্র মাত্র ৬০ টাকার আশেপাশে! মানুষের জীবন সহজ করে তুলতে বড় পদক্ষেপ কেন্দ্র সরকারের

Published By: Ritwik | Published On:
Advertisements

বর্তমান ভারতে জ্বালানি ক্ষেত্রে বড়সড় পরিবর্তন এসেছে। একদিকে চলছে বৈদ্যুতিক গাড়ির বিপ্লব অন্যদিকে মোদী সরকার কিছুদিন আগেই পেট্রোলের মধ্যে ২০% ইথানল মেশানোর ব্যপারে জানায়। আর গত ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে পেট্রোল পাম্পে ২০ শতাংশ ইথানল মিশ্রিত জ্বালানি বিক্রি শুরু হয়েছে। যদিও সেটি ছিল প্রাথমিক প্রজেক্ট। আগামী ২০২৫ সালের মধ্যে দেশের সমস্ত পেট্রোল পাম্পেই বিক্রী হবে ইথানল মিশ্রিত তেল। তারপর এসেছে আরেক নয়া আপডেট।

Advertisements

জ্বালানি খরচ এবং জ্বালানি মূল্য কমানোর জন্য প্রথমে E20 এবং বর্তমানে E100 পেট্রোল এসেছে বাজারে। আসলে মোদী সরকার ক্ষমতায় এসে প্রথমে ১০% পেট্রোল মিশিয়ে E10 পেট্রোল বিক্রি করতে শুরু করে। এরপর সেখানেই থেমে না থেকে 20% ইথানলের মিশ্রণে তৈরি হয় E20। এই মহারথ হাসিল হওয়ার পরই E100 এর দিকে এগিয়েছে কেন্দ্র সরকার।

100% ইথানলের ওপর নির্ভর জ্বালানিটির নাম দেওয়া হয়েছে ফ্লেক্স ফুয়েল। জাপানিজ গাড়ি নির্মাতা সংস্থা টয়োটা এক্ষেত্রে কেন্দ্র সরকারের সাথে যোগ দেয়। তারা টয়োটা ইনোভা হাইক্রসের ওপর ভিত্তি করে তৈরি করেছে গাড়িটিকে। আর এই ফ্লেক্স ফুয়েল গাড়ির উদ্বোধন করেন খোদ কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রী নীতিন গড়করি।

নতুন এই হাইব্রিড গাড়িটি চলবে 100 শতাংশ ইথানলের ওপর ভিত্তি করে। যা কিনা পুরোপুরি দূষণ মুক্ত। এছাড়া গাড়িটি পেট্রোলিয়াম জ্বালানির ওপর নির্ভরতা কমাতে এবং দূষণ কমাতেও সাহায্য করবে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গড়করি বলেন, “এই টয়োটা গাড়িটি 100 শতাংশ বায়ো-ইথানল জ্বালানিতে চলবে। আর এই জ্বালানি ব্যবহার করেই শক্তিশালী হাইব্রিড সিস্টেমের জন্য 40 শতাংশ শক্তি উৎপাদন করতে পারবে ইঞ্জিনটি।” এছাড়া কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এও বলেন যে, ইথানলের দাম প্রতি লিটারে 60 টাকা এবং গাড়িটি 15 থেকে 20 কিমি/লিটার মাইলেজ দিতে পারে। ফলে দীর্ঘ যাতায়াতের ক্ষেত্রে পেট্রোলের তুলনায় অনেক সস্তা হবে এই ফ্লেক্স ফুয়েল।