Read In
Whatsapp
Advertisement

শীঘ্রই বাজারে ফিরছে রতন টাটার স্বপ্নের Nano, এক চার্জেই ছুটবে এতদূর! ঘোষণা হয়ে গেল লঞ্চের তারিখ

সদ্যই টাটা ন্যানোর নতুন ডিজাইন সামনে এসেছে। নতুন ন্যানো গাড়িটির ডিজাইন সবাইকেই বেশ চমকে দিয়েছে। বহু মানুষই গাড়িটির ডিজাইনের বেশ প্রশংসা করেছেন। উল্লেখ্য ভারতের তো বটেই সাথে টাটা ন্যানো (Nano)…

Published By: Ritwik | Published On:
Advertisements

সদ্যই টাটা ন্যানোর নতুন ডিজাইন সামনে এসেছে। নতুন ন্যানো গাড়িটির ডিজাইন সবাইকেই বেশ চমকে দিয়েছে। বহু মানুষই গাড়িটির ডিজাইনের বেশ প্রশংসা করেছেন। উল্লেখ্য ভারতের তো বটেই সাথে টাটা ন্যানো (Nano) ছিল পৃথিবীর সবচেয়ে সস্তা গাড়ি।

Advertisements
New Gen Tata Nano
New Gen Tata Nano

টাটা ন্যানো গাড়িটি প্রথম দিকে বিক্রির রেকর্ড বানালেও পরবর্তী সময়ে ধীরে ধীরে বিক্রি কমতে থাকে। আবার ন্যানোর সুরক্ষা ব্যবস্থা খারাপ থাকায় সেই কারণেও টাটাকে এই গাড়ির ওপর রাশ টানতে হয়। কিন্তু টাটারা ন্যানোকে ফিরিয়ে আনার কথা না বললেও গাড়িটি নিয়ে বাজারে বেশ হাইপ ওঠেছে।

বাজারে আবারও কামব্যাক করতে পারে ন্যানো। দারুণ রকমের ডিজাইন নিয়ে এবং নতুন রুপে বাজারে আসতে পারে টাটা ন্যানো। তবে এবার আর জ্বালানি নয়, নতুন ন্যানো লঞ্চ হবে বৈদ্যুতিক মোটরের সাথে। একবার চার্জে 315 কিমি মাইলেজ দিতে সক্ষম গাড়িটি। শক্তিশালী ব্যাটারী প্যাক মাইলেজ এবং পারফরম্যান্স উভয়ই প্রদান করবে।

এক নজরে টাটা ন্যানো EV এর ফিচারস
1) Tata Nano বৈদ্যুতিক অবতারের সাথে বাজারে আসবে। সেখানে বেশ শক্তিশালী ব্যাটারি ব্যবহার করা হবে।

2) Tata Nano Electric এ 315km রেঞ্জ রয়েছে, যা 2023-এর অন্যান্য গাড়ির থেকে অনেকখানি এগিয়ে।

3) টাটা ন্যানো ইলেকট্রিক একটি বিলাসবহুল চেহারা সহ আসবে। গাড়ির ভিতরের অংশও বেশ বিলাসবহুল লুক দেবে।

টাটা ন্যানোতে ফাস্ট চর্জিংয়ের সুবিধাও দেওয়া হবে। সাধারণ চার্জারের সাহায্যে 5 থেকে 6 ঘণ্টায় গাড়িটিকে চার্জ করা যাবে। নিরাপত্তার দিকেও বিশেষ নজর দেওয়া হবে। গাড়িতে চারটি এয়ারব্যাগ থাকবে। এছাড়া অটোম্যাটিক হেডল্যাম্প, ক্র্যাশ সেন্সর সুবিধা দেওয়া হয়েছে। পার্কিং সেন্সর এবং ক্রুজ নিয়ন্ত্রণ ফিচারসও থাকতে পারে। 5 থেকে 7 লাখের বাজেটে গাড়িটি লঞ্চ করতে পারে টাটা মোটরস।

source : rushlane

কবে লঞ্চ হবে গাড়িটি?
টাটা মোটরস এই নিয়ে এখনো মুখ খোলেনি। মিডিয়া রিপোর্ট থেকেই সমস্ত বিষয় সম্পর্কে জানা যাচ্ছে। টাটা মোটরসের তরফে অফিশিয়াল বয়ান অথবা কোনো তথ্যই না পাওয়ার কারণে এক্ষুনি এই নিয়ে কিছু বলা যাচ্ছেনা।