Read In
Whatsapp
Advertisement

TVS Raider 125 নাকি Bajaj Pulsar 125, কম দামে ভালো পারফরম্যান্স পাবেন কোন বাইকে? দেখে নিন তুলনা

পালসারের বাজার ধ্বংস করতে তৈরি নতুন Raider, নতুন থিম সমেত বাজারে বাইক এনে মাত করেছে TVS

Published By: Ritwik | Published On:
Advertisements

TVS মোটরস মার্ভেল থিমের ওপর ভিত্তি করে দুর্দান্ত একটি মোটরসাইকেল নিয়ে এসেছে বাজারে। Raider বাইকটিকে মার্ভেল থিমের সাথে হাজির হয়েছে সংস্থাটি। দুর্দান্ত ডিজাইন এবং পারফরম্যান্সের কারণে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে বাইকটি। তবে Pulsar 125 ও কম যায়না, কিন্তু তাহলে কে এগিয়ে?

Advertisements

Apache বাইকের সাফল্য দেখেই বাজারে Raider বাইক লঞ্চ করেছে TVS। নতুন থিম তরুণ প্রজন্মকে আরো বেশী আগ্রহী করে তুলবে। বাইক-প্রেমীদের চমক দিতে মার্ভেল থিমের উপর ভিত্তি করেই সুপার স্কোয়াড এডিশন নিয়ে আসছে সংস্থাটি।

#Recommended
Apache RTR 160 4V Price in India : বাজারে এল TVS এর নতুন Apache, একবার
পেট্রোল নয়, নতুন জ্বালানিতে চলবে বাইক! পরিবেশ রক্ষার স্বার্থে বড় পদক
Activa নয়, এবার বাজার দখল করবে নতুন Jupiter! বাজেটের মধ্যেই মিলছে লেট
লঞ্চ হয়ে গেল নতুন Hero Mavrick, 2 লাখেরও কম দামেই মিলছে শক্তিশালী 440
বাজারে এল Pulsar N150 এবং N160 এর নতুন ভার্সন, দেখুন কত দামে বাইক লঞ্চ
পেট্রোল নয় ইথানলেই চলবে TVS এর নতুন বাইক! E20 এর পরিবর্তে বাজারে এল ন
Hero Xtreme 125R Vs TVS Raider 125 : জমে ওঠেছে বাইকের বাজার, দুই বাইকে
KTM বা Pulsar নয়, নতুন বছরে বাজারে ধামাল মাচাবে Yamaha এর নতুন বাইক
Hero Mavrick : হিরো লঞ্চ করল তাদের ফ্ল্যাগশিপ বাইক, বুকিং শুরু হচ্ছে এ
কামাল করল হোন্ডার এই বাইক, কম দামেই থাকছে দূর্দান্ত ফিচারস

ফিচারস : একাধিক স্মার্ট ফিচারসের সাথে বাইকটি বেশ আলোড়ন ফেলেছে বাজারে। Raider এর নতুন 125 SmartXonnect মডেলটিতে রয়েছে আধুনিক সমস্ত সুবিধা। 5-ইঞ্চি TFT স্ক্রিনের মাধ্যমে আপনি স্মার্টফোনের সাথে বাইকটিকে কানেক্ট করে নিতে পারবেন। সেখানেই কল, এসএমএস, টার্ন বাই টার্ন নেভিগেশন, আবহাওয়ার মত ফিচারসের সুবিধা পাওয়া যাবে। স্মার্টফোনে আর হাতই দেওয়ার দরকার পড়বে না।

অন্যদিকে পালসারে ডিজিটাল ও অ্যানালগ ডিসপ্লে, স্পিডোমিটার, ট্রিপমিটার ডিজিটাল রয়েছে। তবে মোবাইল কানেক্টিভিটির মতো ফিচারস নেই সেখানে।

পারফরম্যান্স ও ইঞ্জিন : Raider 125 এর পাওয়ারট্রেনও বেশ শক্তিশালী। 124.8 সিসির ওয়ান সিলিন্ডার থ্রি ভালভ ইঞ্জিনটি এয়ার কুল প্রযুক্তির সাথে আসে। ইঞ্জিনটি 7,500 rpm এ সর্বোচ্চ 11.2 bhp শক্তি এবং 6,000 rpm এ 11.2 Nm পিক টর্ক তৈরি করতে সক্ষম। ফলে বেশ পাওয়ারফুল পারফরম্যান্স মিলবে সেই নিয়ে কোনো সন্দেহই নেই। Raider 125 এর ইঞ্জিন একটি 5 গতির গিয়ারবক্সের সাথে যুক্ত রয়েছে। যা মাত্র 5.9 সেকেন্ডেই 60 kmph গতি তুলতে সক্ষম।

বাজাজ পালসারে রয়েছে 124 সিসি সিঙ্গেল সিলিন্ডার এয়ার কুল্ড ইঞ্জিন। সেটি সর্বাধিক 8.82 কিলোওয়াট শক্তি এবং 11 নিউটন মিটার টর্ক তৈরি করতে সক্ষম। 5 গতির গিয়ারবক্সের সাথে আসে। পালসারে ABS না থাকলেও Raider এ সিঙ্গল চ্যানেল ABS রয়েছে।

দামে কত ফারাক?
নতুন TVS Raider 125 সুপার স্কোয়াড এডিশন বেশ কয়েকটি ভেরিয়ন্টে লঞ্চ হয়েছে। এর মধ্যে স্ট্যান্ডার্ড ভেরিয়ন্টের এক্স শোরুম দাম 95,219 টাকা, সিঙ্গেল সিট ভেরিয়েন্টের এক্স শোরুম দাম 96,219 টাকা এবং স্প্লিট সিট ভেরিয়েন্টের এক্স শোরুম দাম 1,01,570 টাকা। Pulsar NS 125 এর এক্স শোরুম দাম রয়েছে 1,06,355 টাকা।